মঙ্গলবার ২২ মে ২০১৮   |  ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫   |   ৬ রামজান, ১৪৩৯
Untitled Document

বরগুনায় মাসহ কলেজ ছাত্রীকে মারধর

প্রকাশঃ বুধবার, ০২ মে ২০১৮    ১৭:২৯
ডেস্ক নিউজ

বরগুনা সদর উপজেলার কালিরতবক এলাকায় সুমাইয়া জাহান (১৯) নামের এক কলেজ ছাত্রী ও তাঁর মা নাজমা বেগমকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে।  জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিবেশী পলাশ নামের এক ব্যক্তি তাদেরকে মারধর করে।  এ ঘটনায় আহত সুমাইয়া বরগুনা জেনারেল হাসপতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।  কালিরতবক এলাকায় মৃত আবদুস সালামে সিকদারের মেয়ে সুমাইয়া বরগুনা আইডিয়াল কলেজে উচ্চমাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষে অধ্যায়নরত।

সুমাইয়ার মা নাজমা বেগম জানান, প্রতিবেশী পলাশের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলছে।  নানা সময়ে ঠুনকো অযুহাতে পলাশ ও তার স্ত্রী পুত্র মিলে প্রায়ই আমাদের অকথ্য গালিগালাজ করে।  মঙ্গলবার সকালে তুচ্ছ ঘটনায় সুমাইয়াসহ আমাদের গালিগালাজ করতে থাকে। এর প্রতিবাদ করায় পলাশ ও তার ছেলে এবং স্ত্রী মজিবুন্নেসা আসমা আমার মেয়ে সুমাইয়াকে মারধর করতে থাকে।  এসময় এগিয়ে গেলে তারা আমাকেও মারধর করে ও অকথ্য গালাগাল করতে থাকে।  আমার স্বামী মৃত, একমাত্র ছেলে ঢাকাতে পড়াশোনা করে। আমাদের পরিবারকে জমি থেকে উৎখাত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে পলাশ।  এর আগেও জমি নিয়ে সালিশ বৈঠকে বসার কথা থাকলেও পলাশ বসতে নারাজ। সে আমাদের সাথে জবরদস্তি করছে।

এ ঘটনায় মঙ্গবার দুপুরে বরগুনা থানায় অভিযোগ করেছি।  অভিযোগের পর পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলেও আসামিদের গ্রেফতার না করেই চলে এসেছে বলে নাজমার অভিযোগ।  থানায় অভিযোগ দায়েরের পরও পুলিশ পলাশকে গ্রেফতার না করায় আমিও আমার মেয়ে নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত।  অভিযুক্ত পলাশ উল্টো এলাকা ছাড়া করার হুমকি দিচ্ছে বলে নাজমা বেগমের অভিযোগ।

যোগাযোগ করা হলে পলাশ সিকদার মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, 'আমাদের ফাঁসাতে তারা নিজেরাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে।  জমি নিয়ে বিরোধ নিষ্পত্তিতে সালিশ বৈঠকে সিদ্ধান্ত হতে পারে। এ নিয়ে তাদের মারধরের প্রশ্নই আসেনা। '

বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসএম মাসুদুজ্জামান মুঠোফোনে বলেন, 'আমরা অভিযোগের তদন্ত করছি।  মারধরের ঘটনার প্রমাণ পেলে অভিযুক্তদের অবশ্যই আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।
'
জিবিডি/আরআইটি

SRM Institutes of Science and Technology Ad Space
Ad Space
আর্কাইভ
May 2018
SunMonTueWedThuFriSat
1

2

3

4

5

6

7

8

9

10

11

12

13

14

15

16

17

18

19

20

21

22

23

24

25

26

27

28

29

30

31

AIMS Institutes

প্রকাশক

বিপ্লব চন্দ্র চক্রবর্তী

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক

রবিউল ইসলাম তুষার

আমাদের সাথে থাকুন
© Copyright 2017. GEE BD. Designed and Developed by GEE IT