মঙ্গলবার ২২ মে ২০১৮   |  ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫   |   ৬ রামজান, ১৪৩৯
Untitled Document

সন্তানকে বিসর্জন দেবেন, কিন্তু সততাকে নয়

প্রকাশঃ শনিবার, ২৮ এপ্রিল ২০১৮    ০০:৩৭
মোরছালিন মাছুম

অনেস্টি ইজ দ্যা বেস্ট পলিসি" বাক্যটি অামরা ছোট বেলা থেকে শুনে অাসছি। বাক্যের মর্মার্থ অনুযায়ী জীবন পরিচালনা খুবই কঠিন। অাপনি যদি সেভাবে জীবন পরিচালনা করতে চান তাহলে অাপনাকে শত প্রতিবন্ধকতা ও বড় বাঁধার সম্মুখীন হতে হবে। ছোট ছোট সুখ, অানন্দগুলোকে বিসর্জন দিতে হবে। এমনভাবেই সব কিছুকে বিসর্জন দিয়ে স্ত্রী, সন্তানকে নিয়ে সাদামাটাভাবে জীবন যাপন করছেন অাসিফ। তিনি একজন সৎ কর্মকর্তা। সামান্য বেতনের চাকুরী তার।

যে অফিসে তিনি চাকুরী করেন সেখানে প্রতিনিয়ত ঘুষের কারবারি চলে। দীর্ঘদিন ধরে অাসিফের টেবিলে 'ফেমাস গ্রুপে'র একটি ফাইল পড়ে অাছে। সে ফাইলে অাসিফের সিগনেচার প্রয়োজন। ফাইলটা অবৈধ। অফিসের ম্যানেজার অাসিফকে প্রলোভন দেখিয়ে সিগনেচার নেওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। এমনকি 'ফেমাস গ্রুপ 'অফিসে ভারাটে লোক পাঠিয়ে অাসিফকে অনেক ভয়-ভীতি দেখান। কিন্তু তাতে আসিফ রাজি হন না।

এসব ঘটনাকে কেন্দ্র করে গল্প এগোতে থাকে। এরই মাঝে একদিন দেখা দেয় বড় বিপদ। অাসিফের অাদরের ছোট মেয়ে দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ডাক্তার জানান তার চিকিৎসার জন্য ১২ লক্ষ টাকা প্রয়োজন। অাসিফের কঠিন এ অবস্থার সুযোগে 'ফেমাস গ্রুপ ' তাকে ২০ লক্ষ টাকা দিতে চায়। অাসিফ কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়েন।

অাসিফ তার মেয়েকে বাঁচানোর জন্য অবৈধ সে ফাইলে সিগনেচার করতে রাজি হন। পরবর্তীতে অনেক ভাবার পর অাসিফ সিদ্ধান্ত নেন, তিনি চাকুরীতে ইস্তেফা দিবেন তবু অসৎ কাজ করবেন না। অাসিফ তার সন্তানকে বিসর্জন দেবেন, কিন্তু সততাকে নয়। সততার কাছে সন্তান বিসর্জন দেওয়ার পণ করে এক বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন অাসিফ। বলছিলাম 'লোকটি সৎ ছিল' নাটকে অাসিফ চরিত্রের অপূর্ব'র কথা। বর্তমানে অপূর্ব টিভি অভিনেতাদের মধ্যে রয়েছেন জনপ্রিয়তার শীর্ষে।

তিনি বরাবরই ভালো অভিনয় করেন। এ নাটকেও অনেক ভালো অভিনয় করেছেন তিনি। বলা যায় অভিনয়ে অভিজ্ঞতার ঝুলিটা দিন দিন বেশ সমৃদ্ধ হচ্ছে তার। অপূর্ব'র বিপরীতে এ নাটকে অভিনয় করেছেন ইফফাত তিশা। নাটকের গল্পে মাহাত হোসেন যে বার্তা পৌঁছে দিতে চেয়েছেন পরিচালক মাবরুর রশিদ বান্নাহ টিভির পর্দায় তা সুনিপুণভাবে উপস্থাপন করেছেন।

নাটকে সমাজ বাস্তবতায় অসৎ লোকের প্রতি পদে পদে যে কটাক্ষ করা হয় তা দক্ষতার সাথে চিত্রায়িত করা হয়েছে। গল্পটা হতাশা নয়, অাশা নিয়ে শেষ করেছেন পরিচালক। সত্য কোনদিন পরাজিত হয় না, তেমনি সৎ লোকও অসৎ লোকের কাছে পরাজিত হয় না। সৎ ও সত্যের নিটোল যে গল্প বলা হয়েছে নাটকে সেটাকে পজেটিভ ভাবতেই হবে ।

জিবিডি/আরআইটি/এসএস

SRM Institutes of Science and Technology Ad Space
Ad Space
আর্কাইভ
May 2018
SunMonTueWedThuFriSat
1

2

3

4

5

6

7

8

9

10

11

12

13

14

15

16

17

18

19

20

21

22

23

24

25

26

27

28

29

30

31

AIMS Institutes

প্রকাশক

বিপ্লব চন্দ্র চক্রবর্তী

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক

রবিউল ইসলাম তুষার

আমাদের সাথে থাকুন
© Copyright 2017. GEE BD. Designed and Developed by GEE IT